দিনাজপুরে প্রথমবারের মত লাশবাহি ফ্রীজিং সিস্টেম এ্যাম্বুলেন্স হস্থান্তর

ad

মোঃ আরমান হোসেন দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ মৃত ব্যক্তিদের মরদেহ (লাশ) বহনে ভোগান্তির অবসান এবং সিন্ডিকেট চক্রের খপ্পর থেকে ভুক্তভোগি স্বজনদের রেহাই দিতে দিনাজপুরের এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রথমবারের মত লাশবাহি একটি ফ্রীজিং সিস্টেম এ্যাম্বুলেন্স হস্থান্তর করেছেন জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি। আজ শনিবার দুপুরে আনুষ্ঠানিকভাবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে ওই এ্যাম্বুলেন্সটি তুলে দেন তিনি। এতে সেবার মান উন্নয়নসহ স্থানীয়দের দীর্ঘদিনের দাবি পুরন হয়েছে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

এসময় উপস্থিত ছিলেন হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ কাজী শামিম আহমেদ, সহকারি পরিচালক ডাঃ আবু রেজা মাহমুদুল হক এবং মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডাঃ সৈয়দ নাদির হোসেনসহ অন্যান্যরা।

দিনাজপুরে লাশবাহি ফ্রীজিং সিস্টেম এ্যাম্বুলেন্স না থাকার সুযোগে চিকিৎসাধীন অথবা বিভিন্ন কারনে মৃতবরনকারি মরদেহ বহন করতে মাইক্রোবাস এবং বেসরকারি সাধারন এ্যাম্বুলেন্স ব্যবসায়ী সিন্ডিকেটের কাছে জিম্মি হয়েছিল ভুক্তভোগি স্বজনেরা। এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওই একমাত্র লাশবাহি ফ্রীজিং সিস্টেম এ্যাম্বুলেন্সটি হস্থান্তরের ফলে ভোগান্তির অবসানসহ নামমাত্র খরচে অনায়াসে মরদেহ বহন করতে পারবেন স্বজনেরা।

চিকিৎসা ব্যবস্থার সার্বিক পরিস্থিতি এবং বিভিন্ন বিষয়ে সমস্যা সমাধানে হাসপাতালে কর্মরত চিকিৎসক এবং সংশ্লিষ্টদের সাথে মতবিনিময় সভায় বক্তব্য দেন হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি। চিকিৎসা নিতে আসা দরিদ্র রোগীদের ভোগান্তির অবসানসহ আন্তরিকভাবে সঠিক চিকিৎসা সেবা দিতে আহবান জানিয়েছেন তিনি।

এর আগে সকালে দিনাজপুর শহরের ইকবাল হাই স্কুল, নুর জাহান কামিল মাদ্রাসা এবং তফিউদ্দিন মেমোরিয়াল উচ্চবিদ্যালয়ে সম্প্রসারিত বহুতল একাডেমিক ভবনের ফলক উম্মোচন করেন হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি। এতে ব্যয় হয়েছে ২ কোটি ৮৮লাখ টাকা।

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.